গুড় না চিনি, কোনটি বেশি উপকারী? - Lakshmipur News | লক্ষীপুর নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ

Breaking


Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Friday, December 22, 2017

গুড় না চিনি, কোনটি বেশি উপকারী?

প্রতিদিনের অনেক খাবারে আমরা মিষ্টি ব্যবহার করে থাকি। এর বেশিরভাগই ব্যবহার করি গুড় না হয় চিনি।

কিন্তু আসলে কোনটি বেশি উপকারী আমাদের জন্য? আসুন জেনে নেই…..

চিনির চেহারা ভদ্রলোকের মতো শুভ্র ও পবিত্র। আর গুড়ের চেহারায় কোনও কৌলীন্য নেই। তাই গুড়ের চেয়ে চিনিই বেশি সমাদৃত। চিনি তৈরি হয় আখের রস থেকে। আর গুড় হয় সাধারণ আখের রস বা খেজুর রস জ্বাল দিয়ে।

চিনিতে রয়েছে সুক্রোজ নামে শর্করা। আর গুড়ে সুক্রোজের সঙ্গে থাকে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, লোহা। সেই সঙ্গে সামান্য প্রোটিনও থাকে গুড়ে। বিশেষজ্ঞদের দাবি, উপকারের প্রশ্ন উঠলে এগিয়ে থাকবে গুড়।

চিনির চেয়ে কেন এগিয়ে গুড়?

কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ। শরীরে হজমের এনজাইমের কার্যকারিতা বেড়ে যায় গুড় খেলে। যাদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা আছে, তারা লাঞ্চ বা ডিনারের ২০ মিনিট পর অল্প গুড় খেয়ে নিতে পারেন। অ্যানিমিয়া প্রতিরোধ করে। গুড়ে রয়েছে প্রচুর আয়রন। ফলে, হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়ায়। লিভার পরিষ্কার রাখে। ১৫দিন অন্তর অল্প পরিমাণ গুড়। শরীরের থেকে ক্ষতিকারক টক্সিন বের করে দেয়।

গুড় ফ্লু সারায়। কাশি, ঠাণ্ডা লেগে নাক দিয়ে পানি পড়া, মাইগ্রেন, পেট ফাঁপার মতো রোগে উপকারি গুড়। হালকা গরম পানিতে অল্প গুড় মিশিয়ে সেই পানি খেলে উপকার। বা চায়ে চিনির বদলে গুড় দিয়ে খেলে উপকার।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। গুড়ে থাকে প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, জিঙ্ক আর সেলেনিয়ামের মতো মিনারেল। ফলে, শরীরে ফ্রি রেডিক্যাল ড্যামেজ রোধ করে। এ ছাড়া বিভিন্ন ইনফেকশন থেকে লড়াই করার ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়।

তবে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, গুড়ে থাকে প্রচুর ক্যালরি। তাই যাদের ডায়াবেটিস আছে বা যারা ওজন কমাচ্ছেন, তাদের গুড় না খাওয়াই ভাল। বা খেলেও পরামর্শ নিতেই হবে চিকিত্সকদের।

Post Top Ad

Responsive Ads Here