সাব্বির বললেন, ‘পাস্ট ইজ পাস্ট’ - Lakshmipur News | লক্ষীপুর নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ

Breaking


Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Sunday, January 14, 2018

সাব্বির বললেন, ‘পাস্ট ইজ পাস্ট’

নারী কেলেঙ্কারি, দর্শক পেটানো, ম্যাচ রেফারিকে হুমকি, আম্পয়ারদের গালি দেয়ার মতো নানা বিতর্কে জড়ানো সাব্বির রহমানের ছোট্ট খেলোয়াড়ি জীবন। এ ক্রিকেটার এসব বিতর্কে জড়িয়ে শাস্তি হিসেবে গুনেছেন মোটা অংকের জরিমানা। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিষিদ্ধ হয়ে এখন কোটি টাকা ক্ষতির মুখে। তবে বদনাম হলেও প্রতিভাবান এ ক্রিকেটারের উপর আস্থা রেখেছে জাতীয় দল। তাকে রাখা হয়েছে ত্রিদেশীয় সিরিজের ১৬ জনের দলেও। সবকিছু ঠিক থাকলে খেলবেন একাদশেও।কাল থেকে শুরু হচ্ছে শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টাইগারদের ঘরের মাঠে নতুন বছরের চ্যালেঞ্জ। দু’দিনের বিশ্রাম নিয়ে মাঠে ফিরেছে টাইগাররাও। তবে সাব্বির কিন্তু বিশ্রাম নেননি। মাঠে এসে অনুশীলন করেছেন। জানেন জাতীয় দলে টিকে থাকতে হলে তার এখন ব্যাট হাতে প্রমাণ করতে নিজেকে। কিন্তু মাঠের বাইরের বিতর্কে ক্রিকেটে কতটা মন দিতে পারবেন তিনি! বরাবরের মতই আবেগহীন। ব্যাক্তিগত জীবনে এ বদনামগুলো প্রভাব ফেললেও ক্রিকেট জীবনে কোন দাগই কাটে না বলে মনে করেন তিনি। গতকাল অনুশীলনের ফাঁকে তিনি বলেন, ‘মানুষ হিসেবে আমার উপর এই ঘটনা অনেক প্রভাব ফেলেছে। তবে যদি প্রফেশনাল খেলোয়াড় হিসেবে চিন্তা করি, তাহলে পাস্ট ইজ পাস্ট! যা হওয়ার হয়ে গেছে, এটার প্রভাব যাতে খেলায় না পড়ে, সেটা নিয়ে চিন্তা করছি। ন্যাশনাল টিমকে আমার জায়গা থেকে সেরাটা দিতে হবে। আমি বাংলাদেশের পতাকা বহন করছি। চেষ্টা করছি ভালো কিছু করার জন্য।’
গেল বছর দেশের হয়ে ১৪ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন সাব্বির রহমান। এর মধ্যে মার্চে শ্রীলঙ্কায় ও মে মাসে নিউজিল্যান্ডে একটি করে ফিফটি-ঊর্র্ধ্ব ইনিংস খেলেন তিনি। বাকি ১২ ইনিংসে ৪০ রানের উপরে কোনো অবদান রাখতে পারেননি। এর মধ্যে দুই অংকেই পৌঁছাতে পারেননি ৫ ইনিংসে। সবমিলিয়ে ব্যাট হাতে বেশ খারাপই কেটেছে তার। তাই নতুন বছর মাঠের পারফরম্যান্সও তার জন্য বড় চ্যালেঞ্জের। নিজেকে সেভাবেই প্রস্তুত করছেন তিনি। সাব্বির বলেন, ‘পার্সোনালি আমি ভালোভাবেই প্রস্তুত যদিও গত কয়েকটা ম্যাচ আমার খারাপ গেছে। আমি চেষ্টা করেছি, আমার যেটা দুর্বল জায়গা, সেটা শক্ত করার জন্য। ওটা নিয়ে কাজ করেছি। এখন দেখা যাক, সামনে ম্যাচ আসছে। ভালো করার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ্‌।’ নিজের দুর্বলতা নিয়ে তিনি বলেন, ‘কিছু স্পিন নিয়ে কাজ করেছি। কিছু ফ্রন্টফুট নিয়ে কাজ করেছি। নেটে একা এগুলো নিয়ে কাজ করেছি। যে দুর্বলতা ছিল, তা রিকভার করার চেষ্টা করেছি। ম্যাচে রান পাওয়া আসলে কপালের ব্যাপার। রান না পেলেই টেকনিক ভালো না, করলে ভালো; ব্যাপারটা কিন্তু সেটা না।’  প্রায় কোটি টাকার ক্ষতির মুখে পড়েছেন সাব্বির। তাতে নিজের ভিতরে কতটা পরিবর্তন এসেছে তার? অবাক হলেও সত্যি সাব্বির জানিয়ে দিলেন খুব বড় কোন পরিবর্তনই হয়নি। তিনি বলেন, ‘এ রকম কোনো পরিবর্তন আসে নাই!’  তবে বদলাতে হবে সাব্বিরকে। এবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওলটপালট কিছু করলেই পড়তে হবে কঠিন শাস্তির মুখে। ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেই নিষিদ্ধ হবেন। সেই বিষয় কতটা মাথায় আছে তার? সাব্বির বলেন, ‘আসলে মাথায় নেতিবাচক কিছু রাখি না। ডিমেরিট পয়েন্ট নিয়ে ভাবনা নাই। এক পয়েন্ট বা ১০ পয়েন্ট, সমস্যা নয়। চেষ্টা করছি এই সিরিজটা ভালো খেলার জন্য।

Post Top Ad

Responsive Ads Here